প্লে স্টোরে ইনস্টল করবেন কিভাবে? প্লে স্টোর কি?

প্লে স্টোরে ইনস্টল করার পদ্ধতি এবং প্লে স্টোরের ইতিহাস সম্পর্কে খুটিনাটি তথ্য এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনার জানাতে যাচ্ছেন। যারা এন্ড্রোয়েড মোবাইল ব্যাবহার করেন তারা প্লে স্টোর সম্পর্কে প্রায় সবায় যানেন।

প্লে স্টোর এর মাধ্যমে আমরা আমাদের প্রয়োজনীয় এপ্লিকেশন বা এপস ডাউনলোড করতে পারি।প্লে স্টোর যে আমাদের শুধু প্রয়োজনীয় জিনিস প্রদান করে থাকে তা নয়। প্লে স্টোর আমাদের অনেক অপ্রয়োজনীয় জিনিস ও প্রদান করে থাকে। 

প্লে স্টোর কি?

প্লে স্টোর হচ্ছে গুগল কতৃক একটি প্লাটফর্ম এর নাম। এর বর্তমান নাম হচ্ছে গুগল প্লে স্টোর।গুগল তার এন্ড্রোয়েড ব্যাবহারকারীদের সুবিদার্থে ২০০৮ সালে এটি বাজারে ছাড়ে।এই প্লাটফর্ম তৈরির মূল উদ্দ্যেশ্য হচ্ছে এপ্লিকেশন দিয়ে গুগলের নিজস্ব একটি ভান্ডার তৈরি করা।

যেহেতু এখানে এপ শেয়ার করাহট এবং শধুমাত্র এন্ড্রোয়েড ব্যাবহারকারীরা এটা পেত, তাই এর পূর্ব নাম ছিল এন্ড্রোয়েড স্টোর। কিন্তু বর্তমানে এটির নাম পরিবর্তন করে গুগল প্লে স্টোর করা হয়েছে। 

গুগল প্লে স্টোরে কি পাওয়া যায়?

২০২০ সালের এক রিপোর্ট অনুযায়ী, গুগলে প্লে স্টোরে ২.৮ মিলিয়ন এপ্লিকেশন আছে। গুগল প্লে স্টোরে যে শুধুমাত্র এপ্লিকেশন পাওয়া যায় তা ঠিক না।এখানে মুভি, গান, বই,টিভি ইত্যাদি পাওয়া যায়।

তবে গুগল এটিকে এপ্লিকেশন এর জন্য বেশী গুরুত্ব দেয়।আপনি বলতে পারেন? গান কথায় পাবো? আপনি আপনার ফোনের প্লে স্টোর ওপেন করেন। তার থ্রি ডট অথবা নিজের ইমেইল এর উপর ক্লিক করেন।

এরপর লাইব্রাবিরে যান। এবং দেখেন এখানে গান কিংবা টিভি এর জন্য অপসন আছে। কিন্তু দূর্ভাগ্যজনক ভাবে আমাদের দেশে এসব সুবিধা পাওয়া যায় না।পেমেন্ট এর ভেজাল এবং সরকারী জটিলতার কারনে আমরা এই ফিচার দেখতে পাই না।

২০১৮ সালের আগ পর্যন্ত এটিতে ফ্রি মিউজিক সহ দেয়া হয়েছিলো। কিন্তু ইউটিউব আসার পর এই ফ্রি মিউজিক গুলোকে ইউটিউবে স্থানান্তর করা হয়। এবং পরবর্তীতে ইউটিউবকে ফ্রি করা হয়।

আরোও পড়ুন

প্লে স্টোর এপ ডাউনলোড করবো কিভাবে?

প্লে স্টোর হচ্ছে গুগল কতৃক এন্ড্রোয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যাবহারকারীদের জন্য এপ্লিকেশন স্টোর। আমারা জানি এন্ড্রোয়েড অপারেটিং সিস্টেমের মালিক গুগল নিজেই।

এবং এটি একটি ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম। সাধারণত প্রায় প্রত্যেক এন্ড্রোয়েড ফোনে প্লে স্টোর এপ থাকে। কিন্তু এটি ওপেন সোর্স হয়ার কারণে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান এটির ডেভেলপ করেছে।

তাই প্রায় সব ফোনে পাওয়া গেলেও কিছু কিছু ফোনে পাওয়া যায় না। যেমন, huwei, nokia ইত্যাদি।

এসব কোম্পানী নিজেরা একটি এপ স্টোর তৈরি করে এপ সেবা দিয়ে থাকে। তাই তারা তাদের ফোনে গুগল প্লে স্টোর রাখে না।

আমি মেনুয়ালী প্লে স্টোর ইন্সটল করার পদ্ধতি বলছি। প্লে স্টোর যেহেতু একটি এপ তাই আপনাকে এটা ডাউনলোড করতে হবে। নিচে ডাউনলোড লিংক দেয়া হলো।

download play store

ডাউনলোড করে আপনি ইনস্টল করে নিন। 

কোনো এপ্লিকেশন গুগল প্লে স্টোরে ইনস্টল দেয়ার নিয়ম।

আমার দেয়া লিংক এর এপটি কিংবা আপনার ফোনের গুগল প্লে স্টোর এপটি চালু করুন। সর্বশেষ ভারসন অনুযায়ী নিচে স্ক্রিনসট এর মতো ওপেন হবে, যদি আপনার মেইল দিয়ে সাইন ইন করা থাকে। প্লে স্টোরে ইনস্টল

 

আর যদি সাইন ইন করা না থাকে তাহলে সাইন ইন করতে হবে।

গুগল প্লে স্টোরে সাইন ইন করার নিয়ম 

আপনি যখন গুগল প্লে স্টোরে প্রথমবার প্রবেশ করবেন তখন সাইন ইন নামক এক অপসন মাঝ স্কিনে দেখা যাবে। সেখানে ক্লিক করুন এবং কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন।

এখানে একটু সময় নিতে পারে, যার নেট স্পিড যেমন তার তেমন সময় লাগবে এই অপসন পাস করার জন্য।

এর পর আপনার মেইল একাউন সিলেক্ট করতে হবে। সিলেক্ট করলেই কাজ প্রায় শেষ। আর আপনার ফোনে যদি মেইল একাউন্ট করা না থাকে তাহলে ওখান থেকে লগ ইন করতে হবে কিংবা নতুন মেইল একাউন্ট তৈরি করতে হবে।

সেখানে প্রথমে মেইল এড্রেস দিতে হবে এবং এরপর পাসওয়ার্ড দিতে হবে। তার পর কিছুক্ষণ অপেক্ষা করলেই আপনার প্লে স্টোর এর ইন্টারফেস দেখতে পাবেন।

গুগল প্লে স্টোরে কিভাবে সার্চ করবো?

গুগল প্লে স্টরে সার্চ করা খুব সহজ।আপনি প্রায় যেকোনো বিষয় নিয়ে সার্চ করে সেই সম্পর্কিত এপ খুজে পেতে পারেন। নিচের স্ক্রিনশট টি দেখুন।

 

সার্চ বারে ক্লিক করলেই আপনার কিবোর্ড ওপেন হবে। এছাড়াও এখানে আরো ভিন্ন অনেক অপশন আছে যেখানে কেটাগরি ভিত্তিক এপ পেতে পারেন। আপনি চাইল শুধুমাত্র গেমস এপ্লিকেশন গুলো দেখতে পাবেন। চাইলেই আপনি developers choice এর এপ্লিকেশন গুলো দেখতে পাবেন। এটি সম্পূর্ণ একটি ফ্রি প্লাটফর্ম। নিচে স্ক্রিনশট গুলো দেখুন।

 

এপ ইনস্টল দেয়ার নিয়ম? কিভাবে এপ ইন্সটল দিবো?

মনে করেন গুগল প্লে স্টোর ওপেন করার পর আপনি যেকোনো কিছু সার্চ দিলেন। আমি নিজস্ব একটি পদ্ধতি দেখাচ্ছি। ধরেন আমি “adobe scan” লিখে সার্চ দিলাম।তারপর আপনি নিচে স্ক্রিনশট এর মতো দেখতে পাবেন।প্লে স্টোরে ইনস্টল দেয়ার নিয়ম

 

এবং এখান থেকে আপনাকে ইনস্টল বা “install” লেখায় ক্লিক করতে হবে। এরপর গুগল এপটিকে দেখবে যে এপটি ইনস্টল করার জন্য আপনার ফোন যথাযোগ্য কিনা।

দেখা শেষ হয়ে গেলেই ডাউনলোড হওয়া শুরু করবে। ডাউনলোড হয়ে গেলে অটোমেটিক ইনস্টল হয়ে যাবে। এই হলো প্লে স্টোরে ইনস্টল দেয়ার নিয়ম। আপনি চাইলে যেকোনো কিছু সার্চ দিয়ে প্লে স্টোরে ইনস্টল করতে পারেন।

প্লে স্টোরে এপ আপডেট দেয়ার নিয়ম? কিভাবে প্লে স্টোরে এপ আপডেট করবো?

প্লে স্টোরের পুরাতন ভারসন অনুযায়ী একটি থ্রি ডট অপসন থাকে। কিন্তু সর্বশেষ ভারসন অনুযায়ী থ্রি ডট এর পরিবর্তে মেইল এর প্রোফাইল পিকচার শো করে। নিচে মতো করে।

আপনি এখানে ক্লিক করে “my apps and games” এ যান। সেখানে আপনার পুরো এপ্লিকেশন এর চার্ট শো করবে।

সেখানে কোন এপ্লিকেশন গুলো আপডেট প্রয়োজন আর কোনটার প্রয়োজন নেই সেটাও আপনি দেখতে পাবেন। আপনি যদি সবগুলো এপ্লিকেশন একবারেই আপডেট করতে চান তাহলে “upadate all” এ ক্লিক করুন। তাহলেই হয়ে যাবে।

Read more,

 

গুগল প্লে স্টোরের কিছু সাধারণ সমস্যা

আপনার প্রশ্ন হতে পারে উপরের সব কথায় আমি ফলো করেছি কিন্তু এখনো ডাউনলোড হচ্ছে না। তাহলে এর কি কোনো সমাধান আছে। অবশ্যই আছে। আপনি আপনার গুগল প্লে স্টর এপের সেটিং চেক করুন এবং সেখানে setting>network preference এ যান। এখানে আপনার একটু সমস্যা হতে।

আপনার হয়তো “over data only” , কিংবা, “over wifi only” দেয়া আছে। তাই হচ্ছে না। নিচের স্ক্রিনশট এর মত করে আপনার ফোনেও করে নিন।প্লে স্টোরে ইনস্টল

 

এরপর যদি না হয় তাহলে আপনার প্লে স্টোর এপের ক্যাশে মেমোরি ক্লিয়ার করুন। এরপরো যদি না হয় তাহলে আপনি প্লে স্টোরে ইনস্টল দেয়ার এপে অর্থাৎ প্লে স্টোর এপ্লিকেশনের পুরো স্পেস ডিলিট করে পুনোরায় প্লে স্টোর মেইল দিয়ে খুলুন। অবশ্যই অবশ্যই হবে।

প্লে স্টোর সম্পর্কে ভিন্ন কিছু কথা

প্লে স্টোর “প্লে প্রোটেক্ট” নামে একটি সেবা দেয়া হয় ফ্রিতে। যেটা আপনার ফোনের সকল এপ্লিকেশন কে ঝুকিমুক্ত করে। এক কথায় আপনি যে এপটিকে প্লে স্টোরে ইনস্টল দিবেন সেটাকে যাচাই করে তারপর আপনার ফোনের জন্য প্রস্তুত করবে।

আরোও বিশদ ভাবে বলতে গেলে বুঝায় “প্লে প্রোটেক্ট” এমন এক টুল যেটা দিয়ে কোনো এপকে চেক করা যায় যে এটাতে মালওয়ার কিংবা ক্ষতিকারক কোনো কোডিং আছে কিনা।

যদি থাকে তাহলে গুগল এটিকে আপনার ফোনে ইনস্টল হতে দিবে না। এটা অনেক বড় ধরনের সেবা, যেটা গুগল ফ্রিতে দিয়ে থাকে। এছাড়াও আপনি যখন বাইরের ইন্টারনেট থেকে কোনো কিছু ডাউনলোড করবেন, সেখানে কোনো কিছু নিরাপত্তা থাকে না।

আপনি মালওয়ার কিংবা ভাইরাস দিয়ে আক্রান্ত হলেও হতে পারেন।তাই আমি গুগল ব্যবহার করে কোনো এপ প্লে স্টোরে ইনস্টল করার পরামরর্শ দেই। এছাডাও গুগল প্লে স্টোর এর এপটিতে আছে ডার্ক মোড নামক এক অপশন।

আমাদের শেষকথা,

আমাদের এই পোষ্টে প্লে স্টোরে ইনস্টল দেয়ার নিয়মের পুরো ব্যাখ্যা কেমন লাগলো। এরপরও প্লে স্টোরে ডাউনলোড আপ্প ইনস্টল দিতে যদি কোনো সমস্যা হয় তাহলে আমাদের অবশ্যই জানাবেন। প্লে স্টোরে ইনস্টল download দেয়ার জন্য আমাদের পুরো সাহায্য আপনাদের জন্য থাকবে। ইনস্টল প্লে স্টোরে দেয়া খুব সহজ। পোষ্টটি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন।

 

 

>>>>Related Articles<<<<

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.